শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২ ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
  1. জাতীয়
  2. রাজনীতি
  3. সারাদেশ
  4. Privacy Policy
  5. Terms Of Use
  6. Contact Us
শিরোনাম:

ওয়ানডেতে বাংলাদেশের ১৫তম অধিনায়ক লিটন

বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ হচ্ছে, জনসমাগম নেই, মাঠ ফাঁকা : ওবায়দুল কাদের

মেসি খেলতে নামছেন হাজারতম ম্যাচ

দুর্ভিক্ষের আগে দুর্বৃত্ত সরকারকে বিদায় দিতে হবে : ভিপি নুর

আগামীকাল প্রধানমন্ত্রীর জনসভাকে ঘিরে উৎসবমুখর চট্টগ্রাম

বগুড়ায় স্বতন্ত্র এমপি বাবলুর ওপর যুবলীগের হামলা: পিস্তুল প্রদর্শন নিয়ে তোলপাড়

Author
Arnold
২১ সেপ্টেম্বর ২০২২, ৪:০৮ অপরাহ্ণ

Link Copied!

বগুড়া-৭ আসনের সংসদ সদস্য রেজাউল করিম বাবলুর ওপর হামলা করার অভিযোগ উঠেছে শাজাহানপুর উপজেলা চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন ছান্নুর বিরুদ্ধে। এসময় এমপি বাবলু তার লাইসেন্সকৃত পিস্তুল উঁচিয়ে গুলি করার হুমকি দেন।এ ঘটনায় গোটা এলাকা জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। এমপি বাবলু আজকের পিস্তল প্রদর্শনের ঘটনাটিও মূহূর্তের মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। যদিও বিষয়টি উপজেলা চেয়ারম্যান এবং এমপি আলাদা ভাবে বর্ণনা করেছেন।

জানা যায়, শাজাহানপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সোহরাব হোসেন ছান্নু তার লোকজন নিয়ে এমপি বাবুলর ওপর হামলা চালায়। এসময় এমপি বাবলুর সঙ্গে ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটলেও সংসদ সদস্যের ব্যক্তিগত সহকারী (পিএস) রেজাউল করিম আহত হয়েছেন।তবে উপজেলা চেয়ারম্যান হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, সংসদ সদস্য তার ব্যক্তিগত পিস্তল উঁচিয়ে তাকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন। বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শাজাহানপুর উপজেলা পরিষদের ২য় তলায় এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ এসে এমপি এবং তার পিএসকে উদ্ধার করে। পিএসকে হাসপাতালে ভর্তির পর সাংসদকে তার বাড়িতে পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

এবিষয়ে শাজাহানপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সোহরাব হোসেন ছান্নু বলেন, সংসদ সদস্য রেজাউল করিম বাবলুর শ্যালক ও তার (ব্যক্তিগত সহকারি) পিএস রেজা বিভিন্ন প্রকল্প দেয়ার কথা বলে যুবলীগ নেতাদের কাছ থেকে টাকা নিয়েছেন।দীর্ঘদিনেও সেই প্রকল্প না দিয়ে টালবাহানা করছিলেন। বুধবার সকালে উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় যোগ দেয়ার জন্য সংসদ সদস্য উপজেলা পরিষদে আসেন। এ সময় তার ব্যক্তিগত সহকারি (পিএস) রেজাকে পেয়ে যুবলীগ নেতারা টাকা ফেরত চান। এ নিয়ে হট্টগোল শুরু হলে আমি থামানোর জন্য এগিয়ে যাই। এ সময় সংসদ সদস্য রেজাউল করিম বাবলু তার ব্যক্তিগত পিস্তল বের করে হত্যার উদ্দেশ্যে তাক করেন। খবর পেয়ে দ্রুত পুলিশ ও পরিষদের লোকজন এগিয়ে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

তবে সংসদ সদস্য রেজাউল করিম বাবলু বলেছেন ভিন্ন কথা। তিনি বলেন, আমি সংসদ সদস্য হিসেবে উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির উপদেষ্টা। বুধবার আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় যোগ দেয়ার জন্য উপজেলা পরিষদে পৌঁছে সভা কক্ষে প্রবেশের আগে আমি ইউএনও’র সাথে সাক্ষাতের জন্য তার কক্ষের সামনে অপেক্ষা করছিলাম।
এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন ছান্নু ও উপজেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক বাদশা আলমগীরের নেতৃত্বে যুবলীগের নেতাকর্মীরা হামলা করে। হামলায় আমার ব্যক্তিগত সহকারি রেজা গুরুতর আহত হন। আমি আত্মরক্ষার্থে আমার লাইসেন্স করা ব্যক্তিগত পিস্তল বের করি।

প্রকল্প দেয়ার নামে যুবলীগ নেতাদের কাছ থেকে টাকা নেয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে সংসদ সদস্য রেজাউল করিম বাবলু বলেন, কে কার কাছে টাকা নিয়েছে সে বিষয় নিয়ে তো আমার কাছে অভিযোগ দেয়ার সুযোগ ছিল। কিন্তু তা না করে উপজেলা চেয়ারম্যানের মতো দায়িত্বশীল পদে থেকে সংসদ সদস্যের ওপর হামলা মেনে নেয়া যায় না।
অপরদিকে এঘটনায় এমপি রেজাউল করিম বাবলুকে দায়ি করে উপজেলা যুবলীগ নেতাকর্মীরা একটি বিক্ষোভ মিছিল করেছে ।

আরও পড়ুন

একদিন আগেই ভরে গেছে বিএনপির সমাবেশস্থল

রাজশাহী পৌঁছেই সমাবেশস্থলে হাজির মির্জা ফখরুল

বাইডেন-পুতিন আলোচনায় যে বাধা দেখছে রাশিয়া

রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশে বগুড়ার ৪ হাজার মোটরসাইকেল যোগে নেতাকর্মীরা যাচ্ছেন

গাইবান্ধা উপনির্বাচন নিয়ে ১৩৪ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ইসির শাস্তির সিদ্ধান্ত

জার্মানি-কোস্টারিকা ম্যাচ পরিচালনা করবেন নারী রেফারিরা

সৌদির বিপক্ষে জিতেও গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় মেক্সিকোর

আর্জেন্টিনার কাছে হেরেও শেষ ষোলোতে পোল্যান্ড

বিজয়ের মাস ডিসেম্বর আজ শুরু

বাংলা খবর বিডি ডটকম এর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

সৈয়দপুর আওয়ামীলীগের দ্বন্দ্ব এখন প্রকাশ্যে! বদলে যাচ্ছে রাজনৈতিক দৃশ্যপট

বাঁচামরার ম্যাচে পোল্যান্ডের মুখোমুখি হচ্ছে আর্জেন্টিনা